২২ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

সর্বশেষ:

সাবমেরিন ক্যাবল

সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের জন্য ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকবে

সাবমেরিন ক্যাবল
Facebook
Twitter
LinkedIn

সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের জন্য ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন থাকবে

দেশের প্রথম সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশন কাজের জন্য দুই দিন ২০ ঘণ্টা ইন্টারনেট সংযোগ আংশিক বিচ্ছিন্ন থাকবে। এই কাজের অবশিষ্ট বিস্তারিত সম্প্রতি জানানো হয়েছে, যা বাংলাদেশের ডিজিটাল ইন্ফ্রাস্ট্রাকচার উন্নত করার মূল লক্ষ্যে করা হচ্ছে। এই আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ইন্টারনেট স্পীড এবং সংযোগের দরজা নতুনভাবে খোলা হবে।

এই সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশন কাজের জন্য দুই দিন ২০ ঘণ্টা ইন্টারনেট সংযোগ আংশিক বিচ্ছিন্ন থাকবে, এই সূচনা জনগণের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে। সংযোগ বিচ্ছিন্নের কারণে ব্যবহারকারীরা আগামী মঙ্গলবার ও বৃহস্পতিবার প্রায় ২০ ঘণ্টা ইন্টারনেট সেবা বিঘ্নিত হবেন। এই সময়ে ব্যবহারকারীরা ইন্টারনেট ব্যবহারে সীমিত হতে পারেন, যা তাদের দৈনন্দিন কর্মকাণ্ডে কিছু অসুবিধা সৃষ্টি করতে পারে।

এই সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশন কাজের শুরু হয়েছে এই মাসের প্রথম সপ্তাহে। এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দেশের ইন্টারনেট ইনফ্রাস্ট্রাকচার উন্নত করার চেষ্টা হচ্ছে। এই আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ডেটা সংযোগের স্পীড বাড়ানো হবে এবং নেটওয়ার্ক স্টেবিলিটি উন্নত হবে।

এই সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ইন্টারনেট স্পীড বেড়ে যাবে এবং ব্যবহারকারীরা অনলাইন সার্ভিসে অধিক সময় কাটাতে পারবেন। এছাড়া, এই আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ডেটা সংযোগের নিরাপত্তা এবং নেটওয়ার্ক স্টেবিলিটি উন্নত হবে, যা কোম্পানিগুলির দ্বারা প্রদান করা সেবা গুনগুন উন্নত হবে।

সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশন প্রক্রিয়াটি সম্প্রতি সফলভাবে শুরু হয়েছে, এবং সরকার এবং ডিজিটাল সেবা প্রদানকারী কোম্পানিগুলি এই প্রক্রিয়ার সফলতা অবগত করেছে। এই প্রয়াসের মাধ্যমে বাংলাদেশ ইন্টারনেট সেবার মাধ্যমে নেটওয়ার্ক স্পীড এবং নিরাপত্তা উন্নত করার পথে এগিয়ে যাচ্ছে।

এই সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের প্রতি বাংলাদেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা আশা করছেন যে, এই প্রক্রিয়া শিগগিরই সম্পন্ন হবে এবং তাদের ইন্টারনেট স্পীড এবং নেটওয়ার্ক স্টেবিলিটি উন্নত হবে। এই আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ডেটা সংযোগের স্পীড বাড়তে পারে এবং ব্যবহারকারীরা অনলাইন সার্ভিসে অধিক সময় কাটাতে পারবে। সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ডেটা সংযোগের নিরাপত্তা এবং নেটওয়ার্ক স্টেবিলিটি উন্নত হবে, যা কোম্পানিগুলির দ্বারা প্রদান করা সেবা গুনগুন উন্নত হবে।

সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ইন্টারনেট স্পীড বেড়ে যাবে এবং ব্যবহারকারীরা অনলাইন সার্ভিসে অধিক সময় কাটাতে পারবেন। এছাড়া, এই আপগ্রেডেশনের মাধ্যমে দেশের ডেটা সংযোগের নিরাপত্তা এবং নেটওয়ার্ক স্টেবিলিটি উন্নত হবে, যা কোম্পানিগুলির দ্বারা প্রদান করা সেবা গুনগুন উন্নত হবে।

এই সাবমেরিন ক্যাবল আপগ্রেডেশনের প্রতি বাংলাদেশের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা আশা করছেন যে, এই প্রক্রিয়া শিগগিরই সম্পন্ন হবে এবং তাদের ইন্টারনেট স্পীড এবং নেটওয়ার্ক স্টেবিলিটি উন্নত হবে।

Facebook
Twitter
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

abu sufian
dainikbd-ads
Arup Juarder Khulna Batiaghata