২২ জুলাই, ২০২৪

সর্বশেষ:

সর্বশেষ:

চন্দ্রাভিজানে যাচ্ছে ভারতের-3

চন্দ্রাভিজানে যাচ্ছে ভারতের চন্দ্রযান-৩

চন্দ্রাভিজানে যাচ্ছে ভারতের-3
Facebook
Twitter
LinkedIn

সমস্ত ব্যবস্থা সম্পন্ন। আবহাওয়া এবং প্রকৌশল সম্পর্কিত সমস্ত সমস্যা সমাধান করার পর, আজ শুক্রবার (১৪ জুলাই) ভারতের নতুন চন্দ্রযান-৩ মহাকাশযান চাঁদের পথে যাত্রা শুরু করবে। বিশ্বের চতুর্থ দেশ হিসাবে ভারত একটি চুক্তি স্বরূপ চাঁদে মহাকাশযান প্রেরণের চেষ্টা করছে।

চন্দ্রযান-৩ হচ্ছে দেশের তৃতীয় চন্দ্রাভিযান মিশন। শুক্রবার দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে এটি অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটা সতীশ ধলা মহাকাশ কেন্দ্র থেকে উদ্বেগ করে প্রক্ষেপণ করা হবে। চন্দ্রযান-৩ অভিযানটি ভারতীয় চাঁদে মহাকাশযান প্রেরণের দ্বিতীয় প্রচেষ্টা। ২০১৯ সালে দেশটি একটি চন্দ্রযান-২ নামে যান চাঁদে পাঠানোর চেষ্টা করেছিল।

কিন্তু সেটি সফলভাবে চাঁদের পৃষ্ঠে অবতরণ করতে সক্ষম হয়নি। আগের সালে ২০০৭ সালে একটি মহাকাশযান চন্দ্রযান-১ চাঁদের চারপাশে ঘুরানোর জন্য পাঠিয়েছিল নয়াদিল্লি। এটি এক বছর সফলভাবে ঘুরানোর পর ২০০৮ সালে এটিতে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছিল। ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা পরিষদ (আইএসরো) চন্দ্রযান-৩ নতুনভাবে উদ্ভাবিত করেছে।

এই যানে একটি ল্যান্ডার, প্রোপালসন মডিউল এবং রোভাট সংযুক্ত আছে। এর লক্ষ্য হচ্ছে সম্পূর্ণ নিরাপত্তায় চাঁদে পড়া, তথ্য সংগ্রহ এবং চাঁদের গঠন সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে বিভিন্ন বিজ্ঞানীদের পরীক্ষা ও পরীক্ষা করা হবে। বিশ্বে এখন পর্যন্ত মাত্র তিনটি দেশ – মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া এবং চীন – সফলভাবে চাঁদে মহাকাশযান প্রেরণ করেছে।

ভারতীয় মহাকাশ বিজ্ঞানীদের চাঁদ সম্পর্কে দীর্ঘদিন ধরে কাজ চালানো হচ্ছে। তাদের লক্ষ্য হচ্ছে নতুন মহাকাশযান চন্দ্রযান-৩-কে চাঁদের অজ্ঞাত দক্ষিণ পৃষ্ঠে অবতরণ করা। ২০০৭ সালে ভারতের চন্দ্রযান-১ পানিতে অণু খুঁজে পেয়েছিল। ১১ বছর পর এই দ্বিতীয় মহাকাশযান চন্দ্রযান-২ সফলভাবে চন্দ্রকক্ষে প্রবেশ করেছে। তবে এই মহাকাশযানের রোভার চন্দ্রপৃষ্ঠে ব্যাঘাত ঘটেছে। চন্দ্রযান-২ এরও চাঁদের দক্ষিণ পৃষ্ঠে অবতরণ করার পর্যাপ্ত উদ্দেশ্য সম্পন্ন হয়নি।

Facebook
Twitter
LinkedIn

সর্বশেষ খবর

abu sufian
dainikbd-ads
Arup Juarder Khulna Batiaghata